১৯ জুলাই ২০২৪, শুক্রবার, ০২:৩৩:৪৬ পূর্বাহ্ন
সুরা হাশরের শেষ তিন আয়াত, অর্থ ও ফজিলত
  • আপডেট করা হয়েছে : ২৬-০৬-২০২৪
সুরা হাশরের শেষ তিন আয়াত, অর্থ ও ফজিলত

সুরা হাশরের শেষ তিন আয়াতের গুরুত্ব অপরিসীম। এর মধ্যে আল্লাহ তাআলার আসমাউল হুসনা-এর অনেক গুরুত্বপূর্ণ আসমা বা নাম উল্লেখ রয়েছে। আল্লাহর সুন্দর সুন্দর নামগুলো আল্লাহ তাআলা এই তিন আয়াতের মধ্যে তুলে ধরেছেন।


২৪ আয়াত বিশিষ্ট সুরা হাশরের রুকু সংখ্যা ৩। এ সুরাটি পবিত্র মদীনা নগরীতে নাজিল হয়েছে। 


প্রথম থেকে তৃতীয় তথা শেষ রুকু, ১ থেকে ২৪ নম্বর আয়াত। সত্য অস্বীকারকারীদের পরিণতি দুনিয়া ও আখেরাতে কত কঠিন তা বলে শুরু হয়েছে এ সুরা। সুরার বড় অংশে সমরনীতির আলোচনা রয়েছে। সুরা শেষ হয়েছে মোমিনদের উদ্দেশ্যে উপদেশ বাণী দিয়ে। 


সুরা হাশরের শেষ তিন আয়াতের ফজিলত অনেক বেশি। সকাল-বিকাল সুরা হাশরের শেষ তিন আয়াত পড়া অনেক গুরুত্বপূর্ণ ও সওয়াবের আমল। এ সম্পর্কে বিভিন্ন হাদিস বর্ণিত হয়েছে। 


হাদিস ও তাফসির গ্রন্থে সুরা হাশরের বেশ কিছু ফজিলত ও আমল উল্লেখ করা হয়েছে। ইরবাজ ইবনে সারিয়া (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) ঘুমানোর আগে মুসাব্বিহাত সুরা পাঠ করতেন। এগুলোর মধ্যে এমন একটি আয়াত আছে, যে আয়াতটি এক হাজার আয়াত অপেক্ষা উত্তম। (মুসাব্বিহাতের মধ্যে সুরা হাশর অন্তর্ভুক্ত) (তিরমিজি, হাদিস : ২৯২১)


শেয়ার করুন