১৯ জুলাই ২০২৪, শুক্রবার, ০৩:২০:৪১ পূর্বাহ্ন
‘তামিম-মাহমুদউল্লাহ ফেরায় শক্তিশালী হবে বাংলাদেশ’
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৮-০৯-২০২৩
‘তামিম-মাহমুদউল্লাহ ফেরায় শক্তিশালী হবে বাংলাদেশ’

তামিম ইকবাল ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে গত কয়েক মাস চলছে বেশ আলোচনা। এশিয়া কাপে তাঁদের ছাড়া খেলতে গিয়েছিল বাংলাদেশ। অবশেষে তাঁরা বিশ্বকাপের আগে ফিরেছেন বাংলাদেশ দলে। তাতে বাংলাদেশ দলের পারফরম্যান্স আরও ভালো হবে বলে বিশ্বাস করেন ইরফান পাঠান। 


তামিম, মাহমুদউল্লাহ না থাকায় এবারের এশিয়া কাপে অনেক নতুন মুখ নিয়ে খেলতে যায় বাংলাদেশ। বাংলাদেশকে অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে হয়েছে মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের টুর্নামেন্টে। তবে সেগুলোর বেশির ভাগই ব্যর্থ হয়েছে। পাঁচ ম্যাচের মধ্যে দুই ম্যাচে উদ্বোধনী জুটি ৫০ ছাড়িয়েছে। ওপেনিংয়ে তামিমের বদলে নাঈম শেখ, অভিষিক্ত তানজিদ হাসান তামিম কেউই আস্থার প্রতিদান দিতে পারেননি। তাছাড়া পুরো ৫০ ওভার ব্যাটিং করতে পেরেছে ২ ম্যাচে। মাহমুদউল্লাহর পরিবর্তে মিডল অর্ডার, লোয়ার মিডল অর্ডারে কেউই দিতে পারেননি আস্থার প্রতিদান। আফিফ হোসেন ধ্রুব, শামীম হোসেন পাটোয়ারীরা নিজেদের প্রমাণে ব্যর্থ হয়েছেন। 


এশিয়া কাপ শেষে বাংলাদেশ এরপর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের টুর্নামেন্ট থেকে কিউইদের বিপক্ষে সিরিজে আনা হয়েছে অনেক পরিবর্তন। তামিম, মাহমুদউল্লাহর মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটাররা ফিরেছেন। ঘরের মাঠে সিরিজের পর ভারতে বিশ্বকাপ খেলতে উড়াল দেবে বাংলাদেশ। অভিজ্ঞ দুই ক্রিকেটারের ফিরে আসায় বাংলাদেশ দলের শক্তি বেড়েছে বলে মনে করেন ইরফান পাঠান। যেখানে মাহমুদউল্লাহ তাঁর ওয়ানডে ক্যারিয়ারের তিনটা সেঞ্চুরিই করেছেন আইসিসি ইভেন্টে। একই সঙ্গে তামিমের ২০০৭ বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে দুর্দান্ত ফিফটির কথা উল্লেখ করেছেন পাঠান। এবারের এশিয়া কাপে ধারাভাষ্যকার হিসেবে কাজ করা পাঠান গতকাল ফাইনাল শেষে প্রেমাদাসায় সাংবাদিকদের বলেন, ‘তামিম ও রিয়াদের প্রত্যাবর্তন অবশ্যই দলের শক্তি বাড়াবে। ২০০৭ বিশ্বকাপে তামিম ভারত দলকে নিয়ে কী করেছে, সেটা তো সবাই দেখেছি। সে নির্ভয়ে খেলতে পারলে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ অনেক শক্তিশালী হয়ে উঠবে।’ 


 ১১ বছর পর এশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশ জিতেছে এবার। ৫ রানের রুদ্ধশ্বাস জয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। ব্যাটিংয়ে ৮৫ বলে ৮০ ও বোলিংয়ে ৪৩ রানে ১ উইকেট—এমন অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে হয়েছিলেন ম্যাচসেরা। ভারতের বিপক্ষে জয় বাংলাদেশকে অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে বলে মনে করেন পাঠান। একই সঙ্গে সাকিবের নেতৃত্বেরও প্রশংসা করেছেন তিনি। সাবেক ভারতীয় বাঁহাতি পেসার বলেন, ‘সাকিব ভালো করছে অধিনায়ক হিসেবে। ভারতের বিপক্ষে জয় অনেক আত্মবিশ্বাস দেবে। বাংলাদেশ অনেক বছর ধরেই ভালো খেলছে। এখন তাদের ফাস্ট বোলিং ইউনিট অনেক ভালো। দলের সমন্বয় ভালো থাকলে সামনে ভালো করতে পারবে। সাকিবকে খেলতে দেখলে অনেক ভালো লাগে। সে দুর্দান্ত খেলোয়াড়, সে বাংলাদেশের ক্রিকেটের নেতা।’


শেয়ার করুন