১৮ জুন ২০২৪, মঙ্গলবার, ০৩:১০:৩২ অপরাহ্ন
দলীয় নির্দেশ অমান্য করে ভাই প্রার্থী, যা বললেন ওবায়দুল কাদের
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৩-০৫-২০২৪
দলীয় নির্দেশ অমান্য করে ভাই প্রার্থী, যা বললেন ওবায়দুল কাদের

উপজেলা নির্বাচনে মন্ত্রী-এমপিদের স্বজনদের দূরে থাকার নির্দেশনা দিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। এরপরও প্রার্থী হয়েছেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরে ছোট ভাই শাহাদাত হোসেন। 

এ বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমার সমর্থনের প্রশ্নই ওঠে না...স্বজনপ্রীতি আমি কোনো অবস্থাতেই প্রশ্রয় দেব না। এটা আপনারা দেখবেন। 

শুক্রবার সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। সেখানে তার কাছে জানতে চাওয়া হয়, উপজেলা নির্বাচনে অনেকেই দলের নির্দেশ মানেননি। তাদের বিষয়ে দল কী ব্যবস্থা নেবে? 

জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, অনেকেই এর মধ্যে প্রত্যাহার করতে শুরু করেছেন। আমাদের কয়েকজন তো আগেই প্রত্যাহার করেছেন। আমাদের গোলাম দস্তগীরের ছেলে প্রত্যাহার করেছেন। আমার মনে হয়, সামনে আরও সময় আছে। 

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় নিজের ছোট ভাইয়ের প্রার্থী হওয়া প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, আপনারা প্রশ্ন করতে পারেন, আমার একজন স্বজনও উপজেলায় প্রার্থী হয়েছেন। সেখানে প্রশ্নটা হচ্ছে, আমাদের সমর্থন আছে কি না। আমি তার পক্ষে প্রশাসন বা নির্বাচনকে প্রভাবিত করছি কিনা, সেটাই দেখার বিষয়। 

তিনি আরও বলেন, পার্টির কারো এর সঙ্গে কোনো সংযোগ নেই, নেতৃস্থানীয় কারো এর সঙ্গে কোনো সমর্থন নেই। আমার সমর্থনের তো প্রশ্নই ওঠে না। শেষ পর্যন্ত সরে যাবে না, সেটাও বলা যায় না। আমাদের প্রধানমন্ত্রীর যে গাইডলাইন, সেটা আমি মুখে বলব একটা আর কাজে করব আরেকটা, এই নীতিতে আমি বিশ্বাসী নই। কোনো প্রকার স্বজনপ্রীতি আমি কোনো অবস্থাতেই প্রশ্রয় দেব না। এটা আপনারা বাস্তবে দেখবেন। 

‘আমার কথা হচ্ছে, ভাই হোক আর স্বজন হোক, আমি তাকে দাঁড় করিয়েছি কিনা, আমি তার পক্ষে সমর্থন দিচ্ছি কি না, আমার দল সমর্থন দিচ্ছে কি না সেটি বড় বিষয়। আমি বা আমার দল যদি পক্ষে না থাকে, তাহলে কেউ বিচ্ছিন্নভাবে নির্বাচনকে প্রভাবিত করার সঙ্গে জড়িত নেই।’ 

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক, এস এম কামাল হোসেন, উপদপ্তর সম্পাদক সায়েম খানসহ আরও অনেকে।

শেয়ার করুন