২৪ জুন ২০২৪, সোমবার, ০৭:২৫:৪৭ পূর্বাহ্ন
অগ্নিকান্ডের খবর জানা গেল সব পুড়ে যাবার পর
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৮-০৯-২০২৩
অগ্নিকান্ডের খবর জানা গেল সব পুড়ে যাবার পর

আগুনে সিট কাপড় পুড়তে পুড়তে দোকানসহ মালামাল পুড়ে ভস্মিভ’ত হয়েছে। খবরটি জানাজানি হয় সব পুড়ে শেষ হবার আগ মূহুর্তে। সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে বাঘার পদ্মার চরাঞ্চলের চকরাজাপুর ইউনিয়নের দাদপুর বাজারে এই ঘটনা ঘটে।


আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত মিন্টু আলী দর্জি ওই ইউনিয়নের পলাশি ফতেপুর গ্রামের এলাহি সেখের ছেলে। এতে প্রায় সাড়ে ৪ লাখ টাকার ক্ষতির দাবি মিন্টু আলীর।


ইউনিয়ন সৈনিকলীগের সাধারণ সম্পাদক মিন্টু আলী জানান, দর্জির কাজের পাশাপাশি সিট কাপড়ের ব্যবসা করেন। রোববার রাতে দোকান ও বিদুৎতের মেইন সুইচ বন্ধ করে বাড়িতে চলে যান। বাজারের পাশের বাসিন্দা রাজন আলীর মাধ্যমে জানেন তার দোকানে আগুন লেগেছে।


রাত সাড়ে ১২ টার দিকে সেখানে গিয়ে দেখেন দোকানসহ সিট কাপড় ও ২টি অটো সেলাই মেশিন পুড়ে ভস্মিভ’ত হয়ে গেছে। সব মিলে তার সাড়ে ৪লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।


স্থানীয় ইউপি সদস্য জহুরুল ইসলাম জানান, জানা জানি হওয়ার আগেই,তার দোকান ও দোকানের মালামাল পুড়ে ভস্মিভ’ত হয়ে যায়। সিট কাপড়ে আগুন ধরে পুড়ার কারণে বাইরে থেকে জানা যায়নি। পাশের দোকান বাঁচাতে মিন্টু আলীর দোকানের আগুন নেভানো হয়।


আগুনের কোন সুত্রপাত পাওয়া যায়নি বলে জানান, সাবেক চেয়ারম্যান আজিজুল আযম।


বাঘা থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) কামরুজ্জামান বলেন, প্রাথমিক তদন্তে ধারণা করা হয়েছে দোকানের ভেতরে বসে থাকা লোকজন অজান্তে বিড়ি সিগারেটের আগুন ফেলতে পারে, সেই আগুন সিট কাপড়ে ধরে আস্তে আস্তে পুড়ে গেছে।


যা বাইরে থেকে বোঝা যায়নি। বাজারেও কোন নৈশ প্রহরি ছিলনা। তবে শত্রুতা করে কেউ করতে পারে কি-না, সে বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন