essay writer
রাজশাহী | শনিবার | জানুয়ারী 20, 2018 | 7 মাঘ, 1425

হাড়ের ক্ষয়রোগ থেকে বাঁচার কিছু সতর্কতা !

হাড়ের ক্ষয়রোগ থেকে বাঁচার কিছু সতর্কতা !

স্বাস্থসেবা ডেস্কঃ গাছপালা যেমন শেকড়ের উপর ভর করে দাড়িয়ে থাকে, তেমনি মানুষের শরীরের হাড়। এই হাড় বিকল হলে মানুষ অচল হয়ে পড়ে। এই হাড়ের ভেতরের ঘনত্ব বাড়া-কমা একটি চলমান প্রক্রিয়া। ১৬-১৮ বছর বয়সের দিকে হাড়ের দৈর্ঘ্য বৃদ্ধি হওয়া বন্ধ হয়ে যায়, কিন্তু ২০ বছর বয়স পর্যন্ত হাড়ের ভেতরের ঘনত্ব ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পেতে থাকে। ৩৫ বছর বয়স পর্যন্ত হাড়ের গঠন ও ক্ষয় একসঙ্গে একই গতিতে চলতে থাকে। ৪০ বছর বয়সের পর থেকে প্রাকৃতিক নিয়মে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হাড় ক্ষয়ের মাত্রা একটু একটু করে বাড়তে থাকে। হাড়ের এই ক্ষয় বাড়তে বাড়তে হাড় যখন নরম ও ভঙ্গুর হয়ে যায় সেই অবস্থাকে অস্টিওপোরোসিস বলা হয়।

হাড়ের ক্ষয়রোগ থেকে বাঁচবেন যেভাবে : —

  • পর্যাপ্ত পরিমাণ ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন ডি গ্রহণ করতে হবে। যেমন- মাছ, মাছের তেল, দুধ, সয়া দুধ, ফলমূলে রয়েছে ভিটামিন ডি।
  • সময় হলে ব্যায়াম করে হাড়ের জয়েন্ট গুলো সচল রাখতে হবে। এই জন্য খেলাধুলা, নাচ, সাইকেল চালানো, সাতার কাটা ইত্যাদি বেশ ভালো শারীরিক পরিশ্রম যা  হাড়ের ক্ষয়রোধে সহায়তা করে, এবং হাড়কে মজবুত করে ।
  • ধূমপান ও এলকোহল পান করা যাবেনা। ধূমপানের ফলে হাড়ের ক্ষয় বাড়তে থাকে এবং এরজন্য হাড়ের ভঙ্গুরতা বৃদ্ধি পায় তাই
    সুস্থ দেহ ও হাড়ের জন্য ধূমপান ও মদ্যপান বন্ধ করে দিন আজই।
  • এছাড়াও দুধ, ডিম, কাঠবাদাম, ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ সামুদ্রিক মাছ, সবুজ শাকসবজি, ব্রকলি, প্রচুর পরিমাণে ফলমূল রাখতে হবে খাদ্য তালিকায়। এতে করেই আপনি পেতে পারেন মজবুত হাড়।
  • মানসিক চাপের সাথে হাড়ের অনেক গুরুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। মানসিক চাপে থাকলে আমাদের দেহে নিঃসরণ হয় কারটিসোল নামক একটি হরমোনের যা হাড়ের ক্ষয়ের জন্য বিশেষভাবে দায়ী। তাই মানসিক চাপ যতো দূরে রাখবেন আপনার জন্য ততোই ভালো হবে।

উপরে বর্ণিত তথ্যগুলো কেবল সর্তকতা মাত্র, বেশি সমস্যার মুখোমুখি হলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিবেন। কারণ কোন রোগকেই হেয় প্রতিপন্ন করা উচিত না।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>