essay writer
রাজশাহী | বৃহস্পতিবার | জানুয়ারী 18, 2018 | 5 মাঘ, 1425

রাজশাহীতে পুলিশের তাড়া খেয়ে পুকুরে ঝাপ দেওয়া নিখোঁজ মাছ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

রাজশাহীতে পুলিশের তাড়া খেয়ে পুকুরে ঝাপ দেওয়া নিখোঁজ মাছ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

মাসুদ রানা রাব্বানী: রাজশাহীর পবায় পুলিশের তাড়া খেয়ে পুকুরে নিখোঁজের দুইদিন পর মাছ ব্যবসায়ী মকবুল হোসেনের (৪৫) লাশ উদ্ধার হয়েছে।আজ রবিবার দুপুর ১২টার দিকে পবা উপজেলার সোনাডাঙ্গা পোড়া বিল ধোপাড় পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত মকবুল হোসেন শাহমখদুশ থানাধীন ভোলাবাড়ি এলাকার মৃত: শামসুল ইসলামের পুত্র। প্রত্যক্ষদর্শীরা ও মকবুলের সঙ্গে থাকা একই এলাকার মাছ ব্যবসায়ী শহীদুল বলেন, গত ৫জানুয়ারী সন্ধ্যার সময় তাড়ি খেতে সে মকবুলসহ ৪জন সোনাডাঙ্গা পোড়া বিল এলাকায় আসে।

সেখানে তারা ভালাম এলাকার তাড়ি ব্যবসায়ী আইযুবের তাড়ির ভাটিতে তাড়ি খাচ্ছিলেন। এসময় আশেপাশের আরো কয়েকজন ছিলো। এসময় পবা থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তাদের তাড়া দিলে পালানোর সময় মকবুল পাশেই ধোপাড় পুকুরে লাফ দেয়। এসময় পুলিশ তাড়ির ভাটি থেকে রাজুসহ আরো একজনকে আটক করে।

পরে গত দুইদিনেও মকবুল বাড়িতে ফিরে না গেলে তার বাড়ির লোকজন তার খোজ করলে পুকুরে তার স্যান্ডেল ও পরনের লুঙ্গি ভাসতে দেখে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স রাজশাহী সদর দফতরের ডুবুরী দলকে খবর দেয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স রাজশাহী সদর দফতরের একটি দল ও পবা থানা পুলিশের একটি দল যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে গতকাল রবিবার দুপুর ১২টার দিকে নিখোঁজ মকবুলের লাশ উদ্ধার করে। পরে পবা থানা পুলিশের এসআই নিয়ামুলের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে পবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পরিমল কুমার চক্রবর্তী বলেন, পরিবারের কারো কোন আপত্তি না থাকায় মকবুলের লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

পুলিশের তাড়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন পুলিশ কাউকে তাড়ে নাকি? পুলিশ দেখে পালিয়ে গেলে পুলিশ তাকে ধরার চেষ্টা করে। আর মকবুলদেরকে পুলিশ গেছিলো, নাকি ডিবি, নাকি র‌্যাব ধরতে গেছিলো সেটি বলা যাচ্ছেনা।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>