essay writer
রাজশাহী | বৃহস্পতিবার | জানুয়ারী 18, 2018 | 5 মাঘ, 1425

কলেজে ঢুকে শিক্ষককে হাতুড়িপেটা

কলেজে ঢুকে শিক্ষককে হাতুড়িপেটা

নাটোর: নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার চাঁদপুর টেকনিক্যাল বিএম কলেজের ভেতরে ঢুকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ লুৎফর রহমানকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার সকাল ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহত কলেজ শিক্ষক লুৎফর রহমান একই কলেজের মনোবিজ্ঞান বিষয়ের প্রভাষক।

আহতের স্বজনরা জানান, কলেজ শিক্ষক লুৎফর রহমানের দুই হাতের দুটি আঙ্গুল ভেঙে দেয়া হয়েছে। তার মাথায় ও হাতে হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। এছাড়া ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার দুই পায়ের রগ কেটে দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।

আহত লুৎফর রহমানের চাচাতো ভাই রবিউল ইসলাম জানান, লুৎফর রহমান সকাল ৯টার দিকে কলেজে যান। এরপর কলেজের পার্শ্ববর্তী ডুমরাই এবং চাঁদপুর এলাকার ছলেমান ফকির, ওহাব ফকির, শহীদ ছালামসহ আরও কয়েকজন লুৎফর রহমানের অফিস কক্ষে প্রবেশ করেন। এরপর লুৎফর রহমানকে হাতুড়ি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে অজ্ঞান অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যান। সংবাদ পেয়ে পুলিশের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে বাগাতিপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রবিউল ইসলাম আরও জানান, কলেজের অধ্যক্ষ মকবুল হোসেনের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে লুৎফর রহমানকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষর দায়িত্ব দেয়া হয়। সম্প্রতি মকবুল হোসেন ও তার লোকজন লুৎফর রহমানকে দেখে নেয়ার হুমকি দিয়ে আসছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার এ হামলার ঘটনা ঘটেছে।

এ বিষয়ে বাগাতিপাড়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, এ বিষয়ে এখনও থানায় কোনো অভিযোগ দেয়া হয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অপরদিকে কলেজ অধ্যক্ষ মকবুল হোসেন এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, বিষয়টি দুঃখজনক। লুৎফর রহমানের ওপর কারা হামলা করেছে সে বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>