essay writer
রাজশাহী | শনিবার | জানুয়ারী 20, 2018 | 7 মাঘ, 1425

মহাদেবপুরে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের অভিযোগ

মহাদেবপুরে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের অভিযোগ

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর মহাদেবপুরে আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে একটি পরিবারের জমি জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে রীনা রাণী মুজমাদার নামে এক ব্যক্তি গত ৯ ডিসেম্বর পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন। এর পরেও প্রশাসন কার্যকর ব্যবস্থা না নেওয়ায় অবৈধ দখলদার খাদেমুল ইসলাম বিবাদমান জমিতে স্থাপনা নির্মাণ করে চলেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, মহাদেবপুর উপজেলা সদরের ঘোষপাড়া এলাকায় ক্রয়সূত্রে প্রায় ৪০ বছর ধরে ১৫ শতক জমি ভোগদখল করে আসছেন রীনা রাণী মুজমাদার। ওই জমির একটি অংশে তাঁর বসতবাড়ি রয়েছে। উপজেলার শিবরামপুর গ্রামের বাসিন্দা খাদেমুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি ওই জমি ক্রয় সূত্রে তাঁর বলে দাবি করলে ২০০৭ সালে নওগাঁ আদালতে এ বিষয়ে মামলা হয়। ওই মামলায় আদালত উভয় পক্ষকে বিবাদমান জমির ওপর স্থিতিবস্থার আদেশ দেন।  সম্প্রতি খাদেমুল ইসলাম আদালতের নির্দেশ উপেক্ষা করে বিবাদমান ওই জমি জোর করে দখল করে পাকা স্থাপনা নির্মাণ কাজ শুরু করেছেন। এ বিষয়ে মহাদেবপুর থানায় নালিশী সম্পত্তিতে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ বন্ধের জন্য প্রয়োজনীয় প্রতিকার প্রার্থনা করলে এ বিষয়ে পুলিশ কোনো কার্যকর ব্যবস্থা না নেওয়ায় খাদেমুল সেখানে স্থাপনা নির্মাণ অব্যাহত রেখেছেন। এ বিষয়ে পুলিশ সুপারকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য আবেদন জানান তিনি।

অভিযোগকারী রীনা রাণী মজুমদার বলেন, ‘খাদেমুলকে দালান-ঘর নির্মাণ করতে বাধা-নিষেধ করলে তিনি আমাকে অকথ্য ভাষায় গালি-গালাজ করেন। এমনকি ওই সম্পত্তি নিয়ে কোনো প্রকার বাড়াবাড়ি করলে তিনি আমাকে প্রাণে মারার হুমকিও পর্যন্ত দিয়েছেন।’

অভিযোগের বিষয়ে খাদেমুল ইসলাম বলেন, ‘যে জমিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। সেই জায়গা ছেড়ে দিয়ে পাশে আমি স্থাপনা নির্মাণ করছি। বিবদমান জমিতে স্থাপনা নির্মাণ প্রসঙ্গে আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা সত্য নয়।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন, ‘এ ব্যাপারে একটা সমাধানের উভয়পক্ষকে আমার কার্যালয়ে আসতে বলা হয়েছে। একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাঁদের নিয়ে বসবেন। উভয় পক্ষের বক্তব্য শুনে ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখার পর এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>